Logo
বিজ্ঞপ্তি
DBC বাংলা News এর জেলা এবং উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে

মহাস্থানের কথিত গাঁজা সম্রাজ্ঞী মরিয়মসহ ৩ মাদক বিক্রেতা গ্রেফতার, পালিয়ে গেছে সম্রাট কামাল

নূর ইসলাম জনি / ২৯২
সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়াঃ বগুড়ার মহাস্থানে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে মহাস্থানের মাদকের গডফাদার নামে পরিচিত কামাল বাহিনীর তিন সদস্যকে বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আটক করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা পুলিশকে জানিয়েছে, উদ্ধার হওয়া গাঁজার মালিক বগুড়া সদরের মথুরা গ্রামের আলতাফ আলীর পুত্র কামাল হোসেন।

অনুসন্ধানে জানা গেছে, কামাল ছিল একজন টোকাই। তাঁর সৎ ভাই শাহজাহান মারা যাওয়ার পর বিয়ে করে শাহজাহানের স্ত্রী অর্থাৎ তাঁর ভাবি মরিয়ম বেগমকে। মরিয়ম আগে থেকেই গাঁজার ব্যবসা করতো। কামাল তাঁর ভাবি মরিয়মকে বিয়ে করে মাদক ব্যবসা করে আজ আঙুল ফুলে কলা গাছ। গাঁজার পাইকারী ও খুচরা ব্যবসা করে অঢেল সম্পদের মালিক হয়েছে সে। স্ত্রী মরিয়ম বেগম একাধিক বার গাঁজাসহ প্রশাসনের হাতে আটক হলেও আইনের ফাঁক ফোকর দিয়ে বের হয়ে আবারও বীরত্বের সাথে গাঁজার ব্যবস্যা চালায়।

এলাকার সচেতন মহল জানায়, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অভিনব কায়দায় তাঁর নিজস্ব ২০ ফুট সাইজের টাসকা ট্রাক দিয়ে গাঁজাসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য পরিবহন করে। আর এই গাঁজা গড়-মহাস্থান এলাকাসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় তাঁর অধিপত্য বিস্তার ঘটায়। আর এসব মহাস্থান পাথরপাড়ায় তাঁর নিজ বাড়িতে মাদকের হাট বসায়। বসবাসের দুই বাড়ি থসকলেও মহাস্থানগড়ের শালবাগানের পাশে নির্মাণ করছে একটি আলিশান বাড়ী। এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কামাল সারাদিন মোটরসাইকেল নিয়ে মোবাইলে মাদক বেচা-কেনা করতে যোগাযোগ করে। স্ত্রী মরিয়মসহ এলাকার একাধিক ব্যক্তি কামালের নেপথ্যে মাদক ব্যবসায় কাজ করে। একটি স্বনির্ভর সূত্রে জানা যায়, মাটক সম্রাট কামাল কে সহযোগিতা করে এলাকার কিছু প্রভাবশালী মহল ও লেবাসধারি কিছু সমাজসেবক।
তাঁরা মাসোয়ারা নিয়ে কামালকে মাদক বিক্রি করতে বাহবা দেয়। ফলে ভয়ে কেউ মাদকের প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। এরই ধারাবাহিকতায় রবিবার দিবাগত রাত ১২টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শিবগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযানে মহাস্থান মোন্নাপাড়া গ্রামে কুরু ফকিরের পুত্র লেবু মিয়ার বসতবাড়ী তল্লাশি করে সাড়ে ৯ কেজি গাঁজা উদ্ধার করে। এসময় লেবু মিয়া (৩৪) ও তার স্ত্রী সিমা (২৮) কে আটক করে পুলিশ। পরে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে প্রাথমিকভাবে উদ্ধারকৃত মাদক কামালের বলে পুলিশকে জানায়। তাঁদের তথ্যের ভিত্তিতে গড়-মহাস্থান পাথরপাড়া গ্রামে কামালের বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালায়। এসময় মাদক সম্রাট কামাল পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে সেখান থেকেও পুলিশ গাঁজা উদ্ধার করে। এ সময় কামালের স্ত্রী কথিত মাদক সম্রাজ্ঞী মরিয়ম বিবি ওরফে ফুলকি (৩০) কে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে শিবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, মাদক আমাদের যুবসমাজ বিশেষ করে নতুন প্রজন্মকে গিলে খাচ্ছে। সরকার যেমন মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে, আমরাও আমাদের মাদক ব্যবসায়ীদের ছাড়ছি না। মাদক ব্যবসায়ীরা যতই কৌশল পাল্টাক না কেনো পুলিশ তাঁদের শেকড় উপড়ে ফেলবে। স্থানীয়রা জানান, মহাস্থান মাদকের গডফাদার কামালের সম্পদের হিসাব দুদকের অনুসন্ধানে আনতে হবে। এলাকাবাসীর প্রশ্ন, এতো তাড়াতাড়ি কামাল কিভাবে ট্রাক, মোটরসাইকেল ও বাড়ী-গাড়ির মালিক হয়।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও
Theme Created By ThemesDealer.Com