Logo
বিজ্ঞপ্তি
DBC বাংলা News এর জেলা এবং উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে

বগুড়ার জর্দায় উঁকুন মারা বিষ মাখিয়ে খাইয়ে শ্বাশুড়িকে হত্যার চেষ্টা, একই জর্দা খেয়ে ননদের মৃত্যু

মাহফুজ মন্ডল / ২১৬
শুক্রবার, ১৬ জুলাই, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়াঃ সংসারে শান্তি ফিরিয়ে আনতে পানের জর্দায় উঁকুন মারার বিষ মাখিয়ে খাইয়ে শ্বাশুড়িকে হত্যার চেষ্টা করেছে এক পাষন্ড পুত্রবধূ। বিষ মাখানো একই জর্দা খেয়ে মারা গেছে ননদ। স্বপ্নের মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই পুত্রবধূ এমন নৃশংসকান্ড ঘটিয়েছে বলে আদালতে জবানবন্দি মূলক স্বীকারোক্তি দিয়েছে ওই পুত্রবধূ। ঘটনাটি ঘটেছে, ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার গাবতলী উপজেলার ধোড়া গ্রামে।

অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযুক্ত পুত্রবধূ পপি আক্তার (২২) কে গ্রেফতার করে হত্যার ঘটনা স্বীকার করে। আজ শুক্রবার সকালে জেলা বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ফৌকাবি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দীতে বলেছেন, চার বছর আগে আল আমিনের সাথে তার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে শ্বাশুড়ির সাথে তার বনিবনা হচ্ছিল না। শ্বাশুড়ির হাত থেকে নিজেকে মুক্ত করার পথ খুঁজতে থাকেন। তিনি জানিয়েছেন, গত ১২ জুলাই রাতে স্বপ্নে জানতে পারেন পান খাওয়ার জর্দার সাথে বিষ জাতীয় কিছু মিশিয়ে শ্বাশুড়িকে খাওয়ালে সে মারা যাবে। এতে কেহই তাঁকে সন্দেহ করবে না। শ্বাশুড়ি মারা গেলে স্বামীর সংসারে শান্তি ফিরে আসবে। যে কথা সে কাজ ১৩ জুলাই সকালে পপি আক্তার ঘরে থাকা উকুন মারা বিষ শ্বাশুড়ির পান খাওয়ার জর্দার সাথে মিশিয়ে রাখে। শ্বাশুড়ি রাশেদা বেগম (৫০) পান খাওয়ার পর অসুস্থ হয়ে পড়ে। পল্লী চিকিৎসকের মাধ্যমে তাকে চিকিৎসা করানো হয়। মা অসুস্থ হওয়ার খবর পেয়ে ১৪ জুলাই পার্শ্ববর্তী গ্রামে বিয়ে দেয়া রাশেদার মেয়ে ও পপির ননদ সাথী বেগম (২৭) মা রাশেদাকে দেখতে আসেন। সাথী বেগমও একই জর্দা দিয়ে পান খেয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন।

পরে তাকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে সাথী বেগম মারা যায়। এদিকে সাথী বেগমের মৃত্যু পর পরিবারের লোকজন বাড়ির বউ পপি আক্তারকে সন্দেহ করে। একপর্যায় পপি বেগম স্বপ্ন দেখে শ্বাশুড়িকে হত্যার উদ্দেশ্যে জর্দার সাথে উকুন মারা বিষ মিশানোর কথা স্বীকার করেন। গ্রেফতারকৃত পপি আক্তার গাবতলী ধোড়া গ্রামের আল আমিন মন্ডলের স্ত্রী।

গাবতলী মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) জামিলুর রহমান জানান, পপি আক্তারের স্বামী আল আমিন বিষয়টি থানায় জানালে পপিকে আটক করে থানায় আনা হয়। এ ঘটনায় আল আমিন বাদী হয়ে স্ত্রী পপি আক্তারের নামে থানায় মামলা করেন।ে

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও
Theme Created By ThemesDealer.Com