Logo
বিজ্ঞপ্তি
DBC বাংলা News এর জেলা এবং উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে

মাদকের হট স্পট বগুড়ার মহাস্থান মোবাইল ফোনে বিক্রি হচ্ছে হেরোইন, ফেন্সিডিল, ইয়াবা

আনোয়ার হোসেন, মহাস্থান থেকে ফিরে / ১৯০
বুধবার, ৯ জুন, ২০২১

বিশেষ প্রতিবেদক, ডিবিসি বাংলা নিউজ ডট কমঃ মহাস্থান গড় বাংলাদেশের একটি ঐতিহাসিক স্থান। এখানকার হাজার বছরের পুরানো ইতিহাস ও ঐতিহ্যে দেখতে দেশ ও বিদেশের বহু পর্যটক প্রতিনিয়ত এখানে এসে থাকেন। দেশের গুরুত্বপূর্ণ এই এলাকাটি এখন মাদকের হট স্পট হয়ে গেছে। দিন-রাত সব সময় হেরোইন, এ্যাম্পল, ফেন্সিডিল, ইয়াবা, গাঁজা, অ্যালকোহলসহ নানা ধরনের মাদক কেনা বেচা হয় এখানে। মোবাইল ফোন ব্যবহার করে সহজেই এসব মাদকদ্রব্য কেনাবেচা হচ্ছে বলে অনেকেই জানিয়েছেন।

নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক স্থানীয় বেশ কয়েজন অভিযোগ করে বলেছেন, মাদক বেচাকেনার সাথে পুরাতন কারবারীদের সাথে যুক্ত হয়েছেন নতুন কিছু ব্যবসায়ী।

একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, মহাস্থাননামা পাড়া ও মহাস্থানগড় মাযারের সন্নিকটে গড়ে ওঠা এলাকায় জম-জমাট ভাবে চলছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মাদক কেনাবেচা।

এসব মাদকের নেপথ্যে যাদের নাম রয়েছে তারা হলেন, মহাস্থান নামাপাড়া গ্রামের লালু মিয়ার ছেলে কুখ্যাত মাদক সম্রাট ও প্রায় দুই ডজন মাদক মামলার আসামী শাহ আলম ওরফে ডাল আলম, ইব্রাহীম খাদেম এর পুত্র একাধিক মামলার আসামী শাহীনুর ইসলাম, নাসিরের পুত্র নয়ন মিয়া, বাদল মিয়া, মৃত দেলোয়ার হোসেনের পুত্র একাধিক মাদক মামলার আসামী শহিদুল ইসলাম, মৃত আজাহার আলীর পুত্র রোহেল মিয়া, মৃত ইংরেজের পুত্র নুরুল ইসলাম। অভিযোগ রয়েছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে মহাস্থান এলাকায় এরা দেদারছে ফেন্সিডিলের ব্যবসা করছে।

সম্প্রতি শিবগঞ্জ থানা পুলিশ ৬৬ বোতল ফেন্সিডিলসহ আলমের মা কে গ্রেফতার করলেও আলম ও তার স্ত্রী পালিয়ে গেছে।

এ ছাড়াও মৃত লুৎফর রহমানের পুত্র একাধিক মাদক মামলার আসামী আবু ছাইদ ও তার ভাই সাকিল আহম্মেদ, লতিফ ড্রাইভার, গাঁজা ব্যবসায়ী মুকুল। এরা মহাস্থান সাখাওয়াত ম্যানশন মার্টেকের পিছনে বাঁশঝাড়, মহাস্থান কলেজের আশাপাশে ও করতোয়া নদীর ধার এলাকায় মাদকের রমরমা ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

সচেতন এলাকাবাসী জানায়, মহাস্থান এলাকায় আগে প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি হলেও মাদক ব্যবসায়ীরা কৌশল পাল্টিয়ে এখন মোবাইলে ফোনে মাদক বিক্রি করছে। তারা মোবাইলে বিকাশের মাধ্যমে টাকা নিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিয়ে নির্ধারিত লোকেশনে মাদক হাত বদল করছে।

মাদক কারবারীদের এমন রমরমা ব্যবসার কারণে সচেতন মহল তাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্ম নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েছে।

ঐতিহাসিক মহাস্থান হযরত শাহ সুলতানের মাজার কেন্দ্রিক জনবহুল এলাকার পবিত্রতা রক্ষার্থে দ্রুত এসব চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা না নিলে প্রত্যেক পরিবারে কিশোর ও তরুনদের মাঝে মাদকের বিস্তার ছড়িয়ে পড়বে।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও
Theme Created By ThemesDealer.Com