Logo
বিজ্ঞপ্তি
DBC বাংলা News এর জেলা এবং উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে

পিতার প্রতিশোধ নিতেই বগুড়ার ধুনটে শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যা, ৪ জনের স্বীকারোক্তি

মাহফুজ মন্ডল / ৯৯
শনিবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়াঃ পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে বগুড়ার ধুনটে মাহি উম্মে তাবাসসুম দ্বিতীয় শ্রেণীর একজন ছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায়
চার নরপশুকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে ওই মানুষ নামের নরপশুরা বলেছে
কোন জন্তু জানোয়ার কামড়ে মেরে ফেলেছে এমনটি বোঝানোর জন্য তারা হত্যার পর কাটিং প্লাস দিয়ে শিশুটির হাতের আঙ্গুল কেটে ফেলেছে।

শনিবার বেলা ১১টায় বগুড়া পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এসব কথা জানান, বগুড়া পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁঞা।গ্রেফতারকৃত হলো, ধুনট উপজেলার নশরতপুর গ্রামের তোজাম্মেল হকের ছেলে বাপ্পি আহম্মেদ, দলিল উদ্দীন তালুকদারের ছেলে কামাল পাশা, সানোয়ার হোসেনের ছেলে শামীম রেজা ও সাহেব আলীর ছেলে লাবলু শেখ। ১৪ ডিসেম্বর ধুনট উপজেলার একটি বাঁশঝাড় থেকে তাবাস্সুমের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তাবাস্সুমের বাবা-মা ঢাকার একটি গার্মেন্টসে চাকুরী করেন। তাবাস্সুম তার দাদা দাদীর সাথে নশরতপুর গ্রামে থাকতো। ইসলামী জলসা থেকে নিখোঁজ হলে অনেক খোঁজাখুজির পর তার লাশ বাঁশঝাড়ে পাওয়া যায়। এ সময় তার যৌনাঙ্গ দিয়ে রক্ত ছিলো এবং তার বুকে ও গালে কামড়ের দাগ ছিলো।

পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁঞা বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামী বাপ্পীর পরিবারের সাথে শিশু তাবাস্সুমের বাবা খোকন এর দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। ঘটনার প্রায় তিনমাস আগে থেকে বাপ্পী তাবাস্সুমকে হত্যা করে প্রতিশোধ নেয়ার পরিকল্পনা করে। এরপর গত ১৪ ডিসেম্বর গ্রেফতারকৃত আসামীরা তাকে ধর্ষণের পর হত্যার পরিকল্পনা করে। তাবাস্সুম তার দাদা-দাদী এবং দুই ফুফুর সাথে ইসলামী জলসায় গেলে তাদের পরিকল্পনাকে বাস্তবে রূপ দিতে আরো সহজ হয়। তারা জলসা চলাকালে তাবাস্সুমকে রাত ৯টায় বাদাম কিনে দেয়ার লোভ দেখিয়ে হাজী কাজেম জুবেদা টেকনিক্যাল কলেজে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ সময় তাবাস্সুমের অতিরিক্ত রক্তরণ হলে সে নিস্তেজ হয়ে যায়। পরে তাকে গলাটিপে হত্যা করে। পরে বাপ্পী তাবাস্সুমের লাশ কাধে করে মোকাম্মেলের বাড়ীর দক্ষিন পাশে বাদশার বাঁশঝাড়ে ফেলে রেখে যায় যাতে বাদশার ছেলে রাতুলকে সবাই সন্দেহ করে। এরপর বাপ্পী বাড়ীতে চলে যায় এবং বাকী তিনজন আসামী জলসায় গিয়ে ভলেন্টিয়ারের দায়িত্ব পালন করে। আসামীদের আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৮ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে বলে সম্মেলনে জানানো হয়।

Print Friendly, PDF & Email


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও
Theme Created By ThemesDealer.Com